নবীন শিক্ষার্থীরাই বাংলাদেশকে নতুন দিগন্তে নিয়ে যাবে - কুয়েট’র উপাচার্য

নবীন শিক্ষার্থীরাই বাংলাদেশকে নতুন দিগন্তে নিয়ে যাবে – কুয়েট’র উপাচার্য

জানুয়ারি ২৫, ২০১৮ : ৭:০৭ অপরাহ্ণ || দৈনিক বাস্তবতা

print
খুলনা প্রতিনিধি :

খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুয়েট) উপাচার্য প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আলমগীর বলেছেন, ‘তোমরা সোনার বাংলা নির্মাণের নতুন সৈনিক। নবীন শিক্ষার্থীরাই লক্ষ শহীদের রক্তের বিনিময়ে অর্জিত বাংলাদেশকে নতুন দিগন্তে নিয়ে যাবে।’ খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুয়েট) ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের ১ম বর্ষ বিএসসি ইঞ্জিনিয়ারিং, বিইউআরপি ও বিআর্ক কোর্সের ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছাত্র-ছাত্রীদের উদ্দেশ্যে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় বৃহস্পতিবার সকালে কুয়েট ভিসি একথা বলেন। তিনি শিক্ষার্থীদের মাদক এবং সন্ত্রাসী কর্মকান্ড থেকে দুরে থাকারও পরামর্শ দেন। এসময় তিঁনি আরো বলেন, শত প্রতিকূলতার মধ্যেও এদেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে আমরা সকল সুযোগ-সুবিধা তৈরীর চেষ্টা করছি, এক্ষেত্রে শিক্ষার্থীদের সুযোগসমূহের সর্বোচ্চ ব্যবহার করতে হবে। দেশের মেধাবী শিক্ষার্থীরা কুয়েটে অধ্যায়ন করছে, বাংলাদেশের অন্যতম সেরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসেবে এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছে। তিনি আরও বলেন, তোমাদের মত নতুন প্রজন্ম দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। এদেশ পথ হারাবে না। অসাম্প্রদায়িক চেতনায় কুয়েট এগিয়ে যাবে। শিক্ষার্থীদের পড়াশুনাকে প্রথম কাজ হিসেবে নিয়ে অন্যান্য সহশিক্ষাক্রম চালিয়ে যেতে হবে।

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯টা থেকে সাড়ে ১১টা পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের স্টুডেন্ট ওয়েলফেয়ার সেন্টারে অনুষ্ঠিত ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন এবং অনুষদের শিক্ষার্থীদের পরিচয় করিয়ে দেন সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের ডীন প্রফেসর ড. কাজী হামিদুল বারী, ইলেকট্রিক্যাল এন্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের ডীন প্রফেসর ড. মো. আব্দুর রফিক, মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের ডীন প্রফেসর ড. মিহির রঞ্জন হালদার। এছাড়া বক্তৃতা করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচালক (ছাত্র কল্যাণ) প্রফেসর ড. সোবহান মিয়া ও স্বাগত বক্তৃতা করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার জি এম শহিদুল আলম। পাবলিক রিলেশন অফিসার মনোজ কুমার মজুমদার ও সেকশান অফিসার তানিয়া হুদার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনস্টিটিউট পরিচালকগণ, বিভিন্ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধানগণ, অন্যান্য পরিচালকগণ, বিভিন্ন হলের প্রভোস্টগণ, শিক্ষকবৃন্দ, দপ্তর প্রধানগণ, সাংবাদিকবৃন্দ, নবাগত ছাত্র-ছাত্রী এবং তাদের অভিভাবকবৃন্দসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

ওরিয়েন্টেশনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে স্টুডেন্ট ওয়েলফেয়ার সেন্টারে কুয়েট ভলেন্টরি বাড ডোনেশান সোসাইটি “ড্রিমস্” এর উদ্যোগে বাড গ্রুপিং কার্যক্রম, বিএনসিসি কার্যক্রম এবং “নো ড্রাগস, নো র‌্যাগিং, নো স্মোকিং, নো ওয়েস্ট লিটারিং” বিষয়ে শিক্ষার্থীদের সম্পৃক্তকরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়। এদিনের বিভিন্ন সময়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগ তাদের বিভাগে ভর্তিকৃত শিক্ষার্থীদের নিয়ে বিভাগীয় ওরিয়েন্টেশন আয়োজন করে। উল্লেখ্য যে, কুয়েটে এবছর ১৪ টি স্নাতক ডিগ্রী প্রদানকারী বিভাগে ১ হাজার ২ জন নতুন শিক্ষার্থী ভর্তি হয়

Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on Twitter0Share on LinkedIn0Share on Reddit0

Tags: , , , ,



Daily Bastobota | bangla news
সম্পাদক : মোঃ জান্নাতুল বাকি
প্রকাশক : আব্দুল মান্নান তালুকদার
মোক্তার বার ভবন (২য় তলা), নিউ মার্কেট রোড, বাগেরহাট।
টেলিফোন : ০৪৬৮-৬৪৭১১
ই-মেইল: dbastobota@gmail.com