‘রূপবান’ শিম চাষে ঘুরে দাঁড়াচ্ছে কেশবপুরের কৃষকেরা

‘রূপবান’ শিম চাষে ঘুরে দাঁড়াচ্ছে কেশবপুরের কৃষকেরা

নভেম্বর ৫, ২০১৮ : ৭:১০ অপরাহ্ণ || দৈনিক বাস্তবতা

print
কেশবপুর (যশোর) প্রতিনিধি: রূপবান জাতের শিম চাষ করে এবার ঘুরে দাঁড়িয়েছে কেশবপুরের কৃষকেরা। এবার পর্যাপ্ত বৃষ্টি না হওয়ায় ঘেরে মাছ চাষে পানি সংকটের কারণে মাছ উৎপাদন বিঘিœত হওয়ায় কৃষকরা বেঁড়িতে সব্জি চাষে ঝুঁকে পড়েন। উপজেলার ১১টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌর এলাকার ঘের বেঁড়ির কৃষকরা সব্জি চাষে সাড়া ফেলেন। বিশেষ করে আগাম ‘রূপবান’ জাতের শিম চাষ করে ভাল ফলন পেয়ে কৃষকরা ঘুরে দাঁড়িয়েছে বলে জানা গেছে। উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, এবার উপজেলার ১১টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌর এলাকার ঘের বেঁড়ির কৃষকরা ৩১০ হেক্টর বেঁড়িতে আগাম ‘রূপবান’ জাতের শিম চাষ করে ব্যাপক সাড়া ফেলেছেন। গৌরীঘোনা ও সুফলাকাটী ইউনিয়নে ঘের বেঁড়িতে শিমের চাষ কৃষকদের কাছে খুবই আকর্ষণীয় হয়ে উঠেছে। বিকেল হলেই এলাকাবাসী বিভিন্ন সড়কের পাশের বেঁড়িতে শিম চাষ দেখার জন্য ভিড় করেন। কৃষি কর্মকর্তারা কৃষকদের পরামর্শ দিয়ে ঘেরে সব্জি চাষে আগ্রহী করে তুলছেন। চলতি মৌসুমে পর্যাপ্ত বৃষ্টি না হওয়ায় ঘেরে মাছ চাষের পাশাপাশি কৃষকরা বেঁড়িতে নানা ধরণের সব্জি চাষ শুরু করেন। উপজেলা মৎস্য অফিস সূত্রে জানা গেছে, কেশবপুরে ৪ হাজার ৬৫৮ টি ছোট বড় মাছের ঘের রয়েছে।

ওই সমস্ত ঘেরের বেঁড়িতে কৃষকরা নানা ধরণের সব্জি চাষ করে অর্থনৈতিক ভাবে স্বাবলম্বি হচ্ছেন। উপজেলার বুড়–লি গ্রামের কৃষক আলতাফ গাজী জানান, তিনি ৮ বিঘা ঘেরের বেঁড়িতে আগাম জাতের শিম চাষ করে ব্যাপক ফলন পেয়েছেন। গত প্রায় ২ মাস ধরে তিনি শিম বিক্রি করছেন। প্রথম দিকে ১১০ টাকা কেজি দরে শিম বিক্রি করেছেন। এখন ৯০ টাকা দরে বিক্রি করছেন। তিনি আরও জানান, পর্যাপ্ত বৃষ্টি না হওয়ায় ঘেরে মাছ চাষে পানি সংকটের কারণে মাছ উৎপাদন বিঘিœত হওয়ায় বেঁড়িতে শিম চাষ করে লাভবান হয়েছেন। একই কথা জানান, আগঁরহাটী গ্রামের কৃষক আলা উদ্দিন, আবু জারদা ও সারুটিয়া গ্রামের কৃষক আব্দুল হাকিম। কৃষক আব্দুল বলেন, ঘেরে পর্যাপ্ত পানি না থাকার কারণে মাছ উৎপাদন বিঘিœত হয়েছে। তবে শিম চাষে তিনি ভাল ফলন পেয়েছেন। উপজেলা কৃষি অফিসার মহাদেব চন্দ্র সানা বলেন, ঘের বেঁড়ির কৃষকরা বেঁড়িতে আগাম ‘রূপবান’ জাতের শিম চাষে ব্যাপক সাড়া ফেলেছেন। প্রতি হেক্টরে কৃষক ১২ থেকে ১৪ মেট্রিক টন করে ফলন পেয়েছেন। ভাল দাম পাওয়ায় কৃষকরা দিন দিন বেঁড়িতে সব্জি চাষে ঝুঁকে পড়ছেন।

Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on Twitter0Share on LinkedIn0Share on Reddit0



Daily Bastobota | bangla news
সম্পাদক : মোঃ জান্নাতুল বাকি
প্রকাশক : আব্দুল মান্নান তালুকদার
মোক্তার বার ভবন (২য় তলা), নিউ মার্কেট রোড, বাগেরহাট।
টেলিফোন : ০৪৬৮-৬৪৭১১
ই-মেইল: dbastobota@gmail.com